“জীবনের আমন্ত্রণে এসো মিলি প্রাণের উৎসবে” স্লোগানে মুখরিত হয়ে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সায়েন্স ক্লাব (আরইউএসসি) – এর আয়োজনে দুইদিনব্যাপী ‘ আরইউএসসি জাতীয় জীববিজ্ঞান উৎসব – ২০২১’ সফলভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের সহযোগীতায় গত ২৬ ও ২৭ জুলাই আরইউইসি প্রথমবারের মতো এই আয়োজন করে।

উৎসবে আয়োজন হিসেবে ছিলো- বায়োলজি অলম্পিয়াড, বিজ্ঞান বিষয়ক বিতর্ক প্রতিযোগিতা এবং পপুলার সায়েন্স টক। উৎসবের শেষদিনে বায়োলজি অলিম্পিয়াড এবং পপুলার সায়েন্স টক অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ও বিজ্ঞান লেখক ডঃ মুহম্মদ জাফর ইকবাল। তিনি বলেন, বাংলাদেশের ছেলেমেয়েরা প্রতিবেশী দেশগুলোর তুলনায় আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান অলিম্পিয়াডগুলোতে অনেক ভালো করছে। তথ্য ও প্রযুক্তিতে কিছু দেশ অনেক এগিয়ে রয়েছে। তিনি সেদিকে ছাত্রছাত্রীদের নজর দিতে বলেন। 

উৎসবের পপুলার সায়েন্স টক অংশে প্রধান আলোচক হিসেবে ছিলেন স্বাধীনতা পুরস্কারপ্রাপ্ত অধ্যাপক ডঃ হাসিনা খান। তিনি “তোমার ঘরে বসত করে কয়জনা” শিরোনামে বিজ্ঞান বক্তৃতা দেন। সম্প্রতি পাঁটের মধ্যকার অণুজীব থেকে আবিষ্কৃত এন্টিবায়োটিক নিয়ে গবেষণাধর্মী বক্তৃতা প্রদান করেন এবং এর অপার সম্ভাবনার কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ডঃ মুহম্মদ জাফর ইকবাল ও প্রধান আলোচক ডঃ হাসিনা খান অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। 

 

এর আগে, উৎসবটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (রুটিন দায়িত্ব) প্রফেসর ডঃ মোহাম্মদ সুলতান-উল-ইসলাম। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সায়েন্স ক্লাবের প্রশংসা করে বলেন ক্লাবটির একের পর এক বিজ্ঞানমুখী কার্যক্রমে এগিয়ে যাচ্ছে বিজ্ঞান। আর এই বিজ্ঞানই আমাদের কুসংস্কার থেকে মুক্তি দেবে এবং দেশকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে। ক্লাবটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি জহুরুল ইসলাম মুন অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা দেন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন সায়েন্স ক্লাবের উপদেষ্টা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের প্রফেসর ডঃ তারিকুল ইসলাম, তড়িৎ রসায়ন ও প্রকৌশল বিভাগের প্রফেসর ডঃ খাদেমুল ইসলাম মোল্লা স্যার এবং জিন প্রকৌশল ও জীবপ্রযুক্তি বিভাগের প্রফেসর আবু রেজা।

অনুষ্ঠানের শেষপর্যায়ে বিশেষ অতিথিবৃন্দ বিতর্ক প্রতিযোগীতা ও বায়োলজি অলিম্পিয়াডের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করেন। 

উৎসবের প্রথম দিন বিতর্ক প্রতিযোগিতার ফাইনালে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের টিম ক্রিস্পার এবং রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের টিম রুয়েট ডিসি আইনইস্টাইন মুখোমুখি হয়। বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন হয় রুয়েট ডিসি আইন্সটাইন।

অনুষ্ঠানের সমাপনী বক্তৃতা দেন সায়েন্স ক্লাবের বর্তমান সভাপতি ইশতেহার আলী। তিনি বায়োলজি উৎসবে অতিথিদের উপস্থিতির জন্য উনাদের ধন্যবাদ জানান এবং অনুষ্ঠান সফল ভাবে সম্পন্ন হওয়ায় তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সায়েন্স ক্লাবের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। আজকের অনুষ্ঠানে এডুকেশন পার্টনার হিসেবে যুক্ত ছিলেন ইউনিভার্সিটি প্রেস লিমিটেড ( ইউপিএল)।