রাজশাহীর পবা উপজেলার মাসকাটাদিঘী বহুমুখী (কারিঃ) স্কুল এন্ড কলেজে আয়োজন করে এই কর্মসূচি। মাসব্যাপি চলবে এই কর্মসূচি। বৃক্ষ শুধুমাত্র পরিবেশের বন্ধু নয়, পরিবেশের প্রাণও। পরিবেশ-প্রকৃতিকে সুন্দর করে বাসযোগ্য পৃথিবী গড়ে তুলতে বৃক্ষের অবদানকে অস্বীকার করার উপায় নেই। সৃষ্টির বুকে প্রাণিকুলের বেঁচে থাকার পেছনে বৃক্ষের রয়েছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষ সব থেকে বড় সাহায্যকারী। বৃক্ষ না থাকলে পৃথিবীর মানব জাতির অস্তিত্ত্বই বিলীন হয়ে পড়ত। মানুষ ও অন্যান্য প্রাণী বৃক্ষের উপর প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে নির্ভশীল। বৃক্ষের প্রয়োজনীতা জন্যই “রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সায়েন্স ক্লাব” তৃতীয় বারের মত আয়োজন করলো এই কর্মসূচি। রাজশাহী অঞ্চলে প্রতি বছর পাঁচ হাজার বৃক্ষ রোপণ করার পরিকল্পনা রাবি সায়েন্স ক্লাবের। এবারও তারা সে লক্ষ্যেই এগিয়ে চলেছে। আজ তারা প্রায় ১০০০ বৃক্ষ রোপন বিতরণ করেছে, রাজশাহীর পবা উপজেলার মাসকাটাদিঘী বহুমুখী (কারিঃ) স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষার্থীদের মাঝে। বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন, সে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষক এবং ধর্মীয় শিক্ষক । সেখানে উপস্থিত ছিলের ক্লাবের সভাপতি আবিদ হাসান, সেক্রেটারি আব্দুল লতিফ, ক্লাবের সেক্রেটারি প্যানেলের সদস্য, মেম্বার, অর্গানাইজার এবং স্কুলের সকল শিক্ষক, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা। স্কুলের প্রধান শিক্ষক তার বক্তব্যে বলেন, গাছ লাগানো শুধু পরিবেশের জন্য নয়, অর্থনৈতিক ভাবেও দেশকে এগিয়ে নিয়ে যায়। গাছের উপর আমরা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে নির্ভরশীল। এজন্য আমাদের বৃক্ষ রোপণ বৃদ্ধি করতে হবে। পরিশেষে বলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সায়েন্স ক্লাবের এমন আয়োজনকে তিনি সাধুবাদ জানান। ক্লাবের সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন, সায়েন্স ক্লাব সায়েন্স ক্লাব ২০১৯ সাল থেকে শুরু করে বৃক্ষ রোপণ কর্মসূচি। আমাদের উদ্দেশ্য পরিবেশকে সুন্দর করে তোলা। এরপর ক্লাবের সদস্যরা সকল শিক্ষক, কর্মচারী, ও শিক্ষার্থী মাঝে বৃক্ষ বিতরণ করেন।